আরেকটি প্রহসনের নির্বাচন চলছে চট্টগ্রামে

অনলাইন ডেস্ক

অনলাইন ডেস্ক

জানুয়ারি ২৭ ২০২১, ১৩:২৫

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও ইসির যৌথ প্রযোজনায় চট্টগ্রামে আরেকটি প্রহসনের নির্বাচন চলছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। আরাফাত রহমান কোকোর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বুধবার (২৭ জানুয়ারি) সকালে মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে শীতবস্ত্র বিতরণকালে তিনি এ অভিযোগ করেন।

নির্বাচনের শুরু থেকেই বিএনপি অভিযোগ করে আসছে, ভোটের মাঠে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নেই। নির্বাচনী সব বিধি লঙ্ঘন করলেও সরকারদলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না। উল্টো বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীর নির্বাচনী এজেন্টদের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। বাসায় গিয়ে গালাগাল ও ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে। ভোটের আগেই এলাকা ছাড়তে বাধ্য করা হয়েছে অনেককেই। পরিবারের নারী সদস্যরাও অত্যাচার নির্যাতন থেকে রক্ষা পাননি। অসৌজন্যমূলক আচরণ করা হচ্ছে তাদের সঙ্গে। অপমান করছে। ফলে উৎসব আমেজে নির্বাচন প্রচারণা শুরু হলেও ভোটের আগেই উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় ভোটাররা।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা একদিন আগে মিটিং করে জানিয়েছেন— কীভাবে নেতাদের গ্রেপ্তার করে, এজেন্টদের গ্রেপ্তার করে বিএনপিকে এলাকাশূন্য করে ভোট ডাকাতি করা যায়। তারা তাই করছে। আসলে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চলছে পুলিশি তাণ্ডব। এ নির্বাচন প্রহসন ছাড়া আর কিছুই নয়।

বিএনপির স্বেচ্ছাসেবক সম্পাদক মীর শরাফত আলী সপুর উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণে আরও উপস্থিত ছিলেন দলটির সমাজকল্যাণ সম্পাদক ও মুন্সীগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান রতন, সিরাজদিখান উপজেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস ধীরন, সাধারণ সম্পাদক আওলাদ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক সোহেল আহমেদ, স্বেচ্ছাসেবক দলের ভাইস চেয়ারম্যান আওলাদ হোসেন উজ্জ্বল, জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন খান, ছাত্রদল নেতা মুন্না প্রমুখ।


ব্রেকিং নিউজ